গীতবিতান(Gitabitan)


শিরোনাম বাণী
(৪৬) (৩৫৬) (২) (৭) (১৪৫) (১) (১৩৬) (১৬২) (১০) (৩৪) (৬) (৩৬) (১৩) (৫৭) (৮) (১) 
(৯) (১) (১৬৪) (৭) (৮৭) (১৫) (৯২) (৯৭) (১৯) (১৩১) (৪২) (৯২) (৮৬) (২৬) (৮) (৫৮) (১২৬) (৯১) 
পুরো (২১৭২)
Showing title starts with [ত]

শিরোনাম পর্যায়
তপস্বীনি হে ধরনীপ্রকৃতি
তপের তাপের বাঁধন কাটুক রসের বর্ষণেপ্রকৃতি
তব অমল পরশরস তব শীতলপূজা
তব প্রেমসুধারসে মেতেছিপূজা ও প্রার্থনা
তব সিংহাসনের আসন হতে এলেপূজা
তবু ছাড়িবি নে মোরেশ্যামা
তবু পারি নে সঁপিতে প্রাণজাতীয় সংগীত
তবু মনে রেখোপ্রেম
তবে আয় সবে আয়বাল্মীকি প্রতিভা
তবে কি ফিরিব ম্লানমুখেপূজা ও প্রার্থনা
তবে শেষ করে দাও শেষ গানপ্রেম
তবে সুখে থাকো সুখে থাকোমায়ার খেলা
তরী আমার হঠাৎ ডুবে যায়বিচিত্র
তরীতে পা দিই নি আমিবিচিত্র
তরুণ প্রাতের অরুণ আকাশপ্রেম ও প্রকৃতি
তরুতলে ছিন্নবৃন্ত মালতীর ফুলনাট্যগীতি
তাঁহার অসীম মঙ্গললোক হতেআনুষ্ঠানিক সংগীত
তাঁহার আনন্দধারা জগতে যেতেছে বয়েপূজা ও প্রার্থনা
তাঁহার প্রেমে কে ডুবে আছেপূজা ও প্রার্থনা
তাঁহারে আরতি করে চন্দ্র তপনপূজা
তাই আমি দিনু বরচিত্রাঙ্গদা
তাই তোমার আনন্দ আমার পরপূজা
তাই হোক তবে তাই হোকচিত্রাঙ্গদা
তাকে আনতে যদি পারি
তার অন্ত নাই গো যে আনন্দে গড়াপূজা
তার বিদায়বেলার মালাখানি আমার গলেপ্রেম
তার হাতে ছিল হাসির ফুলের হারপ্রেম
তারে কেমনে ধরিবে সখীপ্রেম
তারে দেখাতে পারি নে কেন প্রাণপ্রেম
তারে দেহ গো আনি প্রেম ও প্রকৃতি
তারো তারো হরি দীনজনেপূজা ও প্রার্থনা
তিমির-অবগুন্ঠনে বদন তবপ্রকৃতি
তিমিরদুয়ার খোলো এসো এসোপূজা
তিমিরবিভাবরী কাটে কেমনেপূজা
তিমিরময় নিবিড় নিশাবিচিত্র
তুই আয় রে কাছে আয়কালমৃগয়া
তুই অবাক করি দিলি আমায়চণ্ডালিকা
তুই কেবল থাকিস সরে সরেপূজা
তুই ফেলে এসেছিস কারেপ্রেম
তুই রে বসন্তসমীরণনাট্যগীতি
তুমি অতিথি অতিথি আমারচিত্রাঙ্গদা
তুমি আছ কোন্‌ পাড়ানাট্যগীতি
তুমি আপনি জাগাও মোরেপূজা
তুমি আমাদের পিতাপূজা
তুমি আমায় করবে মস্ত লোকনাট্যগীতি
তুমি আমায় ডেকেছিলে ছুটির নিমন্ত্রণেপ্রেম
তুমি ইন্দ্রমণির হার এনেছ সুবর্ণদ্বীপ থেকেশ্যামা
তুমি উষার সোনার বিন্দুবিচিত্র
তুমি এ পার ও পার কর কে গোপূজা
তুমি একটু কেবল বসতে দিয়োপ্রেম
তুমি একলা ঘরে বসে বসেপূজা
তুমি এবার আমায় লহো হে নাথপূজা
তুমি কাছে নাই বলে হেরো সখাপূজা ও প্রার্থনা
তুমি কি এসেছ মোর দ্বারেপূজা
তুমি কি কেবলি ছবিবিচিত্র
তুমি কি গো পিতা আমাদেরপূজা ও প্রার্থনা
তুমি কিছু দিয়ে যাওপ্রেম
তুমি কে গো সখীরে কেন জানাও বাসনামায়ার খেলা
তুমি কেমন করে গান করোপূজা
তুমি কোন্‌ কাননের ফুলপ্রেম
তুমি কোন্‌ পথে যে এলেপ্রকৃতি
তুমি কোন্‌ ভাঙনের পথে এলেপ্রেম
তুমি খুশি থাকো আমার পানে চেয়েপূজা
তুমি ছেড়ে ছিলে ভুলে ছিলেপূজা
তুমি জাগিছ কেপূজা
তুমি জানো, ওগে অন্তর্যামীপূজা
তুমি ডাক দিয়েছ কোন সকালেপূজা
তুমি তো সেই যাবেই চ'লেপ্রেম ও প্রকৃতি
তুমি ধন্য ধন্য হেপূজা
তুমি নব নব রূপে এসোপূজা
তুমি পড়িতেছ হেসে তরঙ্গের মতোনাট্যগীতি
তুমি বন্ধু তুমি নাথ নিশিদিনপূজা
তুমি বাহির থেকে দিলে বিষম তাড়াপূজা
তুমি মোর পাও নাই পরিচয়প্রেম
তুমি যত ভার দিয়েছ সে ভারপূজা
তুমি যে আমারে চাওপূজা
তুমি যে এসেছ মোর ভবনেপূজা
তুমি যে চেয়ে আছ আকাশ ভরেপূজা
তুমি যে সুরের আগুন লাগিয়ে দিলেপূজা
তুমি যেয়ো না এখনিপ্রেম
তুমি রবে নীরবেপ্রেম
তুমি সন্ধ্যার মেঘমালাপ্রেম
তুমি সুন্দর যৌবনঘন রসময়পূজা
তুমি হঠাৎ-হাওয়ায় ভেসে-আসাপূজা
তুমি হে প্রেমের রবিআনুষ্ঠানিক সংগীত
তুমিই করেছ তবেশ্যামা
তুমিই করেছ তবে চুরিশ্যামা
তৃষ্ণার শান্তিচিত্রাঙ্গদা
তৃষ্ণার শান্তি সুন্দরকান্তিচিত্রাঙ্গদা
তোমরা যা বলো তাই বলোপ্রকৃতি
তোমরা হাসিয়া বহিয়া চলিয়া যাওবিচিত্র
তোমা লাগি নাথ জাগি জাগি হেপূজা
তোমা লাগি যা করেছিশ্যামা
তোমা হীন কাটে দিবস হে প্রভুপূজা
তোমাদের এ কী ভ্রান্তিশ্যামা
তোমাদের দান যশের ডালায়বিচিত্র
তোমার বাস কোথা যে পথিকপ্রকৃতি
তোমার মনের একটি কথা আমায় বলোপ্রেম
তোমার অসীমে প্রাণমন লয়ে যত দূরেপূজা
তোমার আনন্দ ওই গোপূজা
তোমার আমার এই বিরহের অন্তরালেপূজা
তোমার আসন পাতব কোথায়প্রকৃতি
তোমার আসন শূন্য আজিবিচিত্র
তোমার এই মাধুরী ছাপিয়ে আকাশ ঝরবেপূজা
তোমার কটিতটের ধটি কে দিল রাঙিয়ানাট্যগীতি
তোমার কথা হেথা কেহ তো বলে নাপূজা
তোমার কাছে এ বর মাগিপূজা
তোমার কাছে দোষ করি নাইশ্যামা
তোমার কাছে শান্তি চাব নাপূজা
তোমার খোলা হাওয়া লাগিয়ে পালেপূজা
তোমার গীতি জাগালো স্মৃতিপ্রেম
তোমার গোপন কথাটি সখীপ্রেম
তোমার দুয়ার খোলার ধ্বনি ওই গো বাজেপূজা
তোমার দেখা পাব বলে এসেছিপূজা
তোমার দ্বারে কেন আসিপূজা
তোমার নাম জানি নে সুর জানিপ্রকৃতি
তোমার নয়ন আমায় বারে বারেপূজা
তোমার পতাকা যারে দাওপূজা
তোমার পায়ের তলায় যেন গোপ্রেম
তোমার পূজার ছলে তোমায়পূজা
তোমার প্রেমে ধন্য কর যারেপূজা
তোমার প্রেমের বীর্যেশ্যামা
তোমার বীণা আমার মনমাঝেপূজা
তোমার বীণায় গান ছিল আরপ্রেম
তোমার বৈশাখ ছিল প্রখর রৌদ্রের জ্বালাপ্রেম
তোমার মোহন রূপে কে রয় ভুলেপ্রকৃতি
তোমার রঙিন পাতায় লিখব প্রাণেরপ্রেম
তোমার শেষের গানের রেশপ্রেম
তোমার সুর শুনায়ে যে ঘুম ভাঙাওপূজা
তোমার সুরের ধারা ঝরে যেথায়পূজা
তোমার সোনার থালায় সাজাব আজপূজা
তোমার হল শুরু আমার হল সারাবিচিত্র
তোমার হাতের অরুণলেখা পাবার লাগিপূজা
তোমার হাতের রাখীখানি বাঁধোপূজা
তোমারি ইচ্ছা হউক পূর্ণ করুণাময় স্বামীপূজা
তোমারি গেহে পালিছ স্নেহেপূজা
তোমারি ঝরনাতলার নির্জনেপূজা
তোমারি তরে, মা, সঁপিনু এ দেহজাতীয় সংগীত
তোমারি নাম বলব নানা ছলেপূজা
তোমারি নামে নয়ন মেলিনুপূজা
তোমারি মধুর রূপে ভরেছ ভুবনপূজা
তোমারি রাগিনী জীবনকুঞ্জে বাজেপূজা
তোমারি সেবক করো হে আজি হতে আমারেপূজা
তোমারে জানি নে হেপূজা ও প্রার্থনা
তোমারেই করিয়াছি জীবনের ধ্রুবতারাপ্রেম
তোমারেই প্রাণের আশা কহিবপূজা ও প্রার্থনা
তোমায় আমায় মিলন হবে বলেপূজা
তোমায় কিছু দেব বলেপূজা
তোমায় গান শোনাবপ্রেম
তোমায় চেয়ে আছি বসে পথের ধারেপূজা
তোমায় দেখে মনে লাগে ব্যথাশ্যামা
তোমায় নতুন করে পাব বলেপূজা
তোমায় যতনে রাখিব হে রাখিব কাছেপূজা ও প্রার্থনা
তোমায় সাজাব যতনে কুসুমে রতনেনাট্যগীতি
তোর অভিশাপ নিয়ে আশেচণ্ডালিকা
তোর আপন জনে ছাড়বে তোরেস্বদেশ
তোর প্রাণের রস তো শুকিয়ে গেলপ্রেম
তোর ভিতরে জাগিয়া কে পূজা
তোর শিকল আমায় বিকল করবে নাপূজা
তোর সাধনা কাহার জন্যে
তোরা বসে গাঁথিস মালাপ্রেম ও প্রকৃতি
তোরা যে যা বলিস ভাইপ্রেম
তোরা শুনিস নি কি শুনিস নিপূজা
তোলোন নামোন পিছন সামননাট্যগীতি

গানের সংখ্যা : ১৬৪


Copyright (c) Think Simple Lab 2010 - 2012. All rights reserved.
Click here to contact us with feedbacks and suggestions.
This site does not support iPhone/iPad Safari browser yet.